২০ টাকার প্রাইভেট মাস্টার ৭৯ বছরের ফখরুল আলম

ফখরুল আলমের বয়স ৭৯ বছর। সাত সন্তানের ২০ টাকার বাবা এই বৃ’দ্ধার কাঁধে এখনো সংসারের ভা’র। স্বামী-স্ত্রী দুজনেই হার্টের রোগী। মাঝে মধ্যেই চিকিৎসকের দারস্ত ‘'হতে হয়। ওষুধ কিনতে গিয়ে এমনিতেই তারা হিমশিম খান।

এরপর আবার ছোট তিন ছে’লে মেয়ের লেখা পড়ার খরচ। এমন পরিস্থিতিতে জী’'বিকার জন্য এক গ্রাম থেকে অন্য গ্রামে ছুটছেন বৃ’দ্ধ ফখরুল।

বাই সাইকেল চালিয়ে প্রাইভেট প্রড়াচ্ছেন দিন প্রতি ২০ টাকায়। ফখরুলের বাড়ি মাগু’রার মহম্ম’দপুর উপজে’লার বড়রিয়া গ্রামে। তিনি মৃ'’’ত আবুল হাশেমের ছে’লে। জানা যায়, কোম্পানির চাকরি ছেড়ে প্রাইভেট পড়ানো শুরু করেন বৃ’দ্ধ ফকরুল। মিশে যান ছোট ছে’লেমেয়েদের সাথে।

এখানে তিনি পিছিয়ে পড়া ছে’লেমেয়েদের পড়ানোর সুযোগ নেন। ফখরুল বলেন, কোম্পানির লোকজন গিভ এন্ড টেক ছাড়া কিছুই বোঝে না। তারা আমা’দের ক’’ষ্ট বোঝে না। বাচ্চাদের মধ্যে এতো পাপ স্প’র্শ করেনাই।

তাদের মধ্যে গিভ এন্ড টেক নেই। তাই বাচ্চাদের পড়াই। তাদের ক’’ষ্ট বোঝার চে’ষ্টা করি। যারা টাকা দিতে পারে না তাদেরকে ফ্রিও পড়াই। আবার অনেকের কাছ থেকে ২০ টাকার কমও নেই।

তিনি আরো বলেন, তবে এখন আমা’র বয়স হয়েছে। তিন ছে’লে ও এক মেয়েকে বিয়ে দিয়েছি। তারা যার যার সংসার করছে। মেঝো ছে’লে কিছু টাকা দেয় তা দিয়ে আমা’র ওষুধই কেনা হয় না। বাধ্য হয়ে জী’'বিকার জন্য এখনো পড়াইতে চাই।