বিচার না পেয়ে ছেলে-মেয়েকে ‘হ’ত্যার পর মায়ের আ’ত্মহ’ত্যা’

সাতক্ষীরার কলারো’য়ায় শিশু কন্যার যৌ'ন নি'র্যা'তনের বিচার না পেয়ে দুই ছেলে-মেয়েকে শ্বা'সরো’ধে হ'ত্যার পর র'শিতে ঝু’লে আ'ত্মহ'ত্যা করেছেন মা মাহফুজা খাতুন (৩২)। খবর পেয়ে পুলিশ, র‌্যাব', সিআইডি, ডিবিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে উপজে’লার লা’ঙ্গলঝা’ড়া বাজারের মসজিদের পাশে নিজ বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। মাহফুজা খাতুন ওই গ্রামের ট্রাকচালক শিমুল হোসেনের স্ত্রী। নি'হত দুই শিশু হলো-শিমুল হোসেনের ছেলে মাহফুজ (৯) ও মেয়ে মোহনা (৫)।

শিমুল হোসেনের বাবা আব্দার আলী জানান, তিন দিন আগে খেলা করার সময় স্থানীয় লাল্টুর ছেলে হৃদয় (১৪) শিশু মোহনাকে যৌ'”ন নি'র্যা'তন করে। মোহনা ঘটনাটি তার মাকে জানালে মাহফুজা স্থানীয় ইউপি সদস্য সাফিজুলের কাছে বিচার চান। তখন সাফিজুল সামনে নির্বাচন উল্লেখ করে কয়েকদিন পরে বিচারের আশ্বা'স দেন।

বি'ষয়টি চেয়ারম্যানকে জানালে তিনি মাম'লার পরামর'্শ দেন। পরে মাহফুজা তার শ্বশুরের কাছে (আব্দার আলী) মাম'লা করার কথা বললে তিনি বলেন, আমর'া গরিব মানুষ, মাম'লার খরচ চালাব কীভাবে?

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার সকালে শ্বশুর (আব্দার আলী) কাজে গেলে মাহফুজা দুই সন্তানকে মে'রে নিজেও আ'ত্মহ'ত্যা করেন বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে নি'হতের পরিবার।

মাহফুজার স্বামী শিমুল হোসেন জানান, বিচারের আশ্বা'স নিয়েই বাড়ি ফিরছিলাম। তবে বাড়িতে ফেরার আগেই মৃ'ত্যুর ঘটনা শুনে বিস্মৃ'ত হয়েছি। মেয়ের যৌ'ন হয়রানির বিচার চেয়ে প্রশাসনের দৃ'ষ্টি আকর্ষণ করেছেন তিনি।

মাসহ দুই সন্তানের মর'দে'হ উ'দ্ধার করে ম’র্গে পাঠানোর হয়েছে। ময়’নাতদ’ন্তের পর ও বি'ষয়টি নিয়ে অধিকতর তদ'ন্ত করে জানা যাব'ে এটি হ'ত্যা না আ'ত্মহ'ত্যা। সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোহাম্ম'দ মোস্তাফিজুর রহমান’ বি'ষয়টি নিশ্চিত করেছেন।