ব্যবধান ৪ ঘণ্টা, করোনা কেড়ে নিল বাবা-ছেলের প্রাণ

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুরে করোনা আক্রান্ত হয়ে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাবা ইয়াকুব আলী ও ছেলে আজগর আলীর মৃত্যু হয়েছে। আজ শুক্রবার স্থানীয় কবরস্থানে বাবা ও ছেলের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। নিহত আজগর আলী হরিপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি ছিলেন।

পরিবারের সদস্যরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে ইয়াকুব আলী (৭০) জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। করোনা উপসর্গ থাকায় ২৫ জুন স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। সেখানে নমুনা পরীক্ষায় তার শরীরে করোনা শনাক্ত হলে তিনি সেখানেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন।

বৃহস্পতিবার কিছুটা সুস্থ হয়ে তিনি হরিপুরের বাড়ি ফিরে আসেন। বাড়ি ফেরার কিছুক্ষণ পর রাত ৮টার দিকে মৃত্যু হয় ইয়াকুব আলীর।

এদিকে, গত ৩০ জুন আজগর আলীর (৫৬) শরীরে করোনা শনাক্ত হলে তাকেও দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বৃহস্পতিবার তার শারিরিক অবস্থা অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে নেও হয়। সেখানে রাত ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন তাদের মৃত্যুতে শোকবার্তা দিয়েছেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহফুজার রহমান সরকার জানান, হঠাৎ করে জুন মাসের প্রথম থেকেইে জেলায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেড়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু নেই, তবে ২৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।