প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে মামুনুল হকের ফোনালাপ ফাঁ’স

সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্ট থেকে বেরিয়ে হেফাজত নেতা মামুনুল হক তার স্ত্রীকে ফোন করে বলেছেন, তার সঙ্গে থাকা ওই নারী জনৈক শহীদুল ইসলামের স্ত্রী। পরিস্থিতির কারণে তাকে দ্বিতীয় স্ত্রী বলতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

স্ত্রীর সঙ্গে মামুনুল হকের সেই ফোনালাপের অডিও ক্লিপটি আমা'দের কাছে এসেছে। কথোপকথনটি পাঠকের জন্য তুলে ধ’রা হল-

আসসালামু আলাইকুম
ওয়ালাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহ

পুরো বিষয়টা আমি তোমাকে সামনে এসে বলব। ওই মহিলা যে ছিল সে হলো আমা'দের শহীদুল ইসলাম ভাইয়ের ওয়াইফ। ওটা নিয়ে সেখানে পরিস্থিতি এমন হয়ে গিয়েছিল যে, এটা বলা ছাড়া…. আমাকে ইয়ে করে ফেলছে-বুঝছো?

আচ্ছা, বাসায় আসেন, তারপর যা বলার বইলেন

বলুম তো, তুমি বিষয়টা.. অন্যান্য কথা অন্যদের বলতে হবে। পরিস্থিতি এমন হয়ে গেছে। তুমি আবার মাঝে অন্যকিছু মনে কইরো না। তোমাকে কেউ জিজ্ঞেস করলে বলবা, হ্যাঁ, আমি বিষয়টা জানি।

ঠিক আছে…………

এদিকে রাত ১০ টার পর ফেসবুক লাইভে এসে মামুনুল হক দাবি করেন, ওই নারীর স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর তিনি তাকে বিয়ে করেছেন। এ সময় মামুনুলের সঙ্গে তার ভাইয়েরা উপস্থিত ছিলেন।

লাইভে দেওয়া বক্তব্যে সমর'্থকদের উত্তেজনা না ছড়িয়ে শান্ত থাকার আহ্বান জানান তিনি।

শনিবার 'বিকালে সোনারগাঁওয়ের রয়েল রিসোর্টের ৫০১ নম্বর কক্ষে এক নারীসহ মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করে স্থানীয় জনগণ। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।

মামুনুল হক ওই নারীকে নিজের দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্ম'দ জায়েদুল আলম বলেন, মাওলানা মামুনুল হক নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ থা'নাধীন রয়েল রিসোর্টের একটি কক্ষে অবস্থান করেছেন- এমন খবরে স্থানীয় লোকজন সেখানে আসে। এর পরেই খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়।

মাওলানা মামুনুল হক পুলিশকে জানিয়েছেন, সঙ্গে থাকা নারী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। সূত্র: সময়ের কন্ঠস্বর