মে মাসে ঘূর্ণিঝড় ও কালবৈশাখীসহ যা থাকছে

প্রায় দশ বছর পর এপ্রিলে দেশে রেকর্ড পরিমাণ কম বৃ'ষ্টিপাত হয়েছে। আর স্বাভা'বিকের চেয়ে সেটা ৭৯ শতাংশ কম। মে মাসেও স্বাভা'বিকের চেয়ে কম বর্ষণ হওয়ার আভাস রয়েছে। এছাড়া চলতি মাসে রয়েছে ঘূর্ণিঝড়ের আশ'ঙ্কাও। আবহাওয়া অধিদ'প্ত র দীর্ঘমেয়াদি এক পূর্বাভাস ও বিগত মাসের আবহাওয়ার পর্যালোচনা করে এমনটি জানিয়েছে।

অধিদ'প্ত রের পরিচালক সামছুদ্দিন আহমেদ স্বাক্ষরিত প্রতিবেদন বলা হয়েছে, এপ্রিলে আবহাওয়ার বিভিন্ন তথ্য ও উপাত্ত পর্যালোচনাকালে পরিলক্ষিত হয় যে, সারা দেশে স্বাভা'বিক অ’পেক্ষা কম (-৭৯ শতাংশ) বৃ'ষ্টিপাত হয়েছে। পশ্চিমা ও পূবালী লঘুচাপের প্রভাব কম থাকায় স্বাভা'বিক অ’পেক্ষা কম বৃ'ষ্টিপাত হয়েছে।

পশ্চিমা লঘুচাপের সঙ্গে পূবালী বায়ু প্রবাহের সংযোগে এবং বায়ুমণ্ডলের নিম্নস্তরে জলীয় বাষ্পের যোগান বাড়ায় ৪, ০৮, ১৬, ২১ ও ৩০ এপ্রিল সময়ে দমকা/ঝড়ো হাওয়া এবং বিজলী চমকানোসহ সিলেট, চট্টগ্রাম, ঢাকা, রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে বৃ'ষ্টি/বজ্রসহ বৃ'ষ্টি হয়। এ সময় বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ওঠেছিল ২১ এপ্রিল ঢাকায়, ৮৩ কিমি।

পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংল'গ্ন এলাকায় তাপীয় লঘুচাপ অবস্থান করায় ২০ ও ২৫ এপ্রিল রাজশাহী, যশোরে ও কু'ষ্টিয়াঅঞ্চলে তীব্র তাপ প্রবাহসহ ১-০৪, ১০-১৬, ১৯-২১, ২৩-৩০ এপ্রিল সময়ে খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, সিলেট, ঢাকা, রংপুর, ময়মনসিংহ ও রাজশাহী বিভাগের অনেকস্থানে মৃ'দু থেকে মাঝারি ধরনের তাপ প্রবাহ (৩৬-৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) বয়ে যায়। এ সময় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যশোরে ওঠেছিল ২৫ এপ্রিল যশোরে, ৪১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে- মে মাসে দেশে স্বাভা'বিক অ’পেক্ষা কিছুটা কম বৃ'ষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। এ মাসে বঙ্গোপ'সাগরে ১-২ টি নিম্নচাপ সৃ'ষ্টি 'হতে পারে। এর মধ্যে একটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে। এছাড়া উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে ২-৩ দিন বৃ'ষ্টি ও শিলাবৃ'ষ্টিসহ মাঝারি/তীব্র কালবৈশাখি ঝড় ও দেশের অন্যত্র ৫-৭ দিন বজ্র ও শিলাবৃ'ষ্টিসহ হালকা/ মাঝারি ধরণের কালবৈশাখি ঝড় 'হতে পারে।

এ মাসে দেশের পশ্চিমাঞ্চলে একটি তীব্র তাপপ্রবাহ (৪০ ডিগ্রির উপরে) এবং সারা দেশে ১-২ টি মৃ'দু (৩৬-৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস) থেকে মাঝারি (৩৮-৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস) ধরনের তাপ প্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

অন্যদিকে, দেশের উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কতিপয় স্থানে ভারি বৃ'ষ্টিপাতের পরিপ্রেক্ষিতে স্বল্পমেয়াদি আকস্মিক বন্যা পরিস্থিতির সৃ'ষ্টি 'হতে পারে। এ সময় দৈনিক গড় বাষ্পীভবন থাকবে ৪ দশমিক ২৫ থেকে ৫ দশমিক ২৫ মিলিমিটার। আর গড় উজ্জ্ব'ল সূর্য কিরণকাল থাকবে ৬ দশমিক ৫ থেকে ৭ দশমিক ৫ ঘণ্টা।