প্রথম সাক্ষাতেই অনুষ্কার অ্যাটিটিউডে মাটি নড়ে গিয়েছিল বিরাটের! রইল বিরুষ্কার প্রেমের সাতকাহন

চলতি বছরের শুরুতেই গত ১১ ই জানুয়ারি ভারতীয় ক্রিকেট টিমের ফার্স্ট লেডি বিরাট 'কোহলি (Virat Kohli) পত্নী অনুষ্কা শর্মার (Anushka Sharma) কোল আলো করে জন্ম নেয় একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তান। মা-বাবা হওয়ার পরে সংবাদ মাধ্যমের কাছে একটু সময় চেয়ে নিয়েছিলেন ‘বিরুষ্কা’।

অন্যান্য তারকা সন্তানদের মতো লাইম'লাইটে রেখে জনপ্রিয়তা, খ্যাতি, বা ক্যামেরার ঝলকানিতে নিজেদের সন্তানকে মোটেই মানুষ করতে চাননা তারকা দম্পতি। আর তাইই আজ পর্যন্ত বিরুষ্কা কন্যা ভামিকার মুখ প্রকাশ্যে আনেননি তারা।

বিরাট অনুষ্কার প্রেম যেন রূপকথার গল্পের মতোন। দীর্ঘদিন প্রেমের পর, সুখী দাম্পত্য জীবন কাটিয়ে, এখন তাদের কাঁধে এসে পড়েছে সন্তান মানুষ করার মতোন গু'রু দায়িত্ব। এখন তো জমাট সংসার, কিন্তু বিরাট অনুষ্কার আলাপ, তারপর প্রেম এই সবই ছিল স্বপ্নের মতো।

২০১৩ সালে একটি বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং-এ গিয়ে সাক্ষাৎ হয়েছিল রাজপুত্তুর আর রাজকন্যার৷ শুটিং ফ্লোরে বিরাটের পাশে উচ্চতায় অনেকখানিক লম্বা দেখাচ্ছিল অনুষ্কাকে। আর তাই জন্যেই একটু কমপ্লেক্সেও পড়ে গিয়েছিলেন বিরাট। তাই বুকে সাহস জমিয়ে একটু মজার ছলেই অনুষ্কাকে বিরাট বলেছিলেন, ‘এর থেকে উঁচু হিল ছিল না?’

কিন্তু এই নিখাদ ঠাট্টাকে মোটেই মজার ছলে নেননি অনুষ্কা, বরং বেশ অ্যাটিটিউডের সাথেই অ'ভিনেত্রী উত্তর দিয়েছিলেন, এক্সকিউজ মি’! খানিকটা অ’প্রস্তুত হয়েই বিরাট বলে ফেলেন, আমি মজা করছিলাম। বিরাটের কথায়, “অনুষ্কাকে এত আত্মবিশ্বা'সী মনে হচ্ছিল, আর আমি একেবারে বোকা বনে গিয়েছিলাম।’’

এই মজা থেকেই ধীরে ধীরে জমাট বাঁধে প্রেম। চুটিয়ে প্রেম করতে শুরু করেন তারা, সম্পর্কের প্রথম থেকেই নিজেদের কথা কোনোদিনই গোপ'ন করেননি তারা৷ বিরাটের খেলা থাকা মানেই গ্যালারিতে উপস্থিত থাকতেন অনুষ্কা। এমনকি অন্তঃস'ত্ত্বাকালীন অবস্থাতেও বিরাটের জন্য গ্যালারি থেকে উৎসাহ জুগিয়েছেন অ'ভিনেত্রী।

২০০৮ এ যখন অনুষ্কা প্রথম অ'ভিনয় জগতে পা রাখলেন, তখনই ভারতীয় দলে অ'ভিষেক করেন বিরাট। দুজনেই নিজেদের ক্ষেত্রে পোক্ত করেন নিজেদের জায়গা।

২০১৪ সালে মাঠ থেকেই অনুষ্কার প্রতি বিরাটের সেই ‘এপিক ফ্লাইং কিস’-এ সবাই বুঝে যান, এ জুটির প্রেম কতটা গভীর।

অবশেষে, ২০১৭ সালে ইতালিতে বসেছিল বিরাট-অনুষ্কার রাজকীয় বিয়ের আসর। পুরো বি'ষয়টাই গোপ'ন রেখে ঘনিষ্ঠ বন্ধু-বান্ধবের উপস্থিতিতে সেরেছিলেন বিবাহ অনুষ্ঠান। দেখতে দেখতে ৪ বছরের মাথায় এখন দুই থেকে তিন হয়েছে বিরুষ্কা। ভামিকা আসার পরেও তাদের প্রেমে বিন্দু মাত্র ভাটা পড়েনি।