বেতনের টাকায় ভিক্ষুককে চাল কিনে দিল পুলিশ

দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অনেক পুলিশ বিতর্কের জন্ম দিচ্ছে৷ গুটিকয়েক পুলিশ সদস্যের নীতিভ্রষ্টতার কারণে এমন অভিযোগ পুরো পুলিশ বাহিনীর উপর এসে পড়ে৷ তবে এর পেছনে নাগরিক সমাজের ভূমিকাও কম দায়ী নয়।

নতুন খবর হচ্ছে, করোনাকালে মহাসংকটে পড়েছেন অসহায়, দরিদ্র ও ভিক্ষুকরা। নীলফামারীর সৈয়দপুরে থানার ট্রাফিক সার্জন নাহিদ পারভেজ চৌধুরী করোনা মহামারিতে নিজের বেতনের টাকায় একজন ভিক্ষুককে খাদ্যসামগ্রী কিনে দিয়েছেন।

মঙ্গলবার (৬ জুলাই) দুপুরে উপজেলা কাশিরাম বেলপুকুর ইউনিয়নের সুতারপাড়া গ্রামের ভিক্ষুক রবিউলকে তিনি এ সহায়তা করেন।

এ প্রসঙ্গে নাহিদ পারভেজ চৌধুরী বলেন, লকডাউন চলাকালীন একজন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক হলে তিনি জানান, আমি কয়েকদিন থেকে ক্ষুধার্ত আছি। তার মলিন মুখ দেখে আর থাকতে পারিনি। তাই আমার সাধ্যমতে কিছু সামগ্রী কিনে দিয়েছি।

একজন পুলিশ সদস্যের এই মহানুভবতা দ্রুত শহরে ছড়িয়ে পড়ে। এর ফলে অনেকেই হয় তো লকডাউন চলাকালীন সময়ে অসহায় দুস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়াতে উদ্ধুদ্ধ হবেন।