মামুনুল হকের বিলাসবহুল গাড়ির রহস্য উন্মোচন

ফেসবুকের একটি গ্রুপে মাওলানা মামুনুল হককে বহনে ব্যবহৃত ল্যান্ড ক্রুজার প্রাডো গাড়ীর ছবি প্রকাশের পর নিমিষেই ভাইরাল হয় পোস্টটি। দেড় কোটি টাকা মূল্যের গাড়ীটির মালিক মামুনুল হক দেখিয়ে খবর প্রচারের পর সামাজিক মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার স্বীকার হন হেফাজতের এই নেতা । এরপরই এই ঘটনার আসল রহস্য তুলে ধরেন মাওলানা সাইফ রাহমান।

মাওলানা সাইফ রাহমান এ বিষয়ে বলেন – গত ২ ফেব্রুয়ারি মাওলানা মামুনুল হক সাহেব সিলেটের হোটেল ডালাসে তার সাংগঠনিক প্রোগ্রাম শেষ করে তিনি নিজের গাড়িতে না উঠে ঐ ব্যবসায়ীর দামি গাড়িটিতে উঠেন সিলেটের গহরপুরের সুলতানপুরের উদ্দিশ্যে যাওয়ার জন্য। সেখানে শাহ সুলতান রহ. সমাজ কল্যাণ পরিষদের উদ্যোগে বাদ মাগরিব বয়ান ছিলো কার।

ছাতকের এই ব্যবসায়ী গাড়িটা নতুন কিনেছেন। মামুনুল হক সাহেবের বরকত পাওয়ার জন্য তিনি তার গাড়িতে মামুন সাহেবকে তুলেন। তারপর এই গাড়িতে করেই তারা সুলতানপুর যান।

এরপর সুলতানপুর বয়ান শেষে এই গাড়িতে করেই সিলেটের ছাতক দারুল উলুম মা'দরাসার উদ্যোগে ছাতক পৌরসভা সংল'গ্ন মাঠে বয়ান করেন তিনি।

যারা বি'ভ্রা'ন্তি ছড়াচ্ছে তাদের উদ্দেশ্যে করে তিনি বলেন – আপনারা মিথ্যা বানোয়াট তথ্য কেন ছড়াচ্ছেন, আল্লাহ মালুম। একজন মানুষকে বিতর্কিত করতে শেষপর্যন্ত মিথ্যার আশ্রয় নিতে হচ্ছে কেন আপনাদের!

তিনি বলেন – মামুনুল হক এরকম গাড়ি একসাথে পাঁচটা রাখার ক্ষ'মতা রাখেন। ডানে বামে সামনে পেছনে। তাঁকে হাদিয়া দেয়ার মানুষের অভাব নেই। কিন্তু তিনি যেটা করেননি, সেটা কেন আপনারা ফলাও করে প্রচার করছেন, বুঝে আসেনা। সুতরাং সত্য সমাগত, মিথ্যা বিতাড়িত।