লকডাউনে কাজ বন্ধ, ইউটিউব চ্যানেল খুলে লাখ টাকা কামাচ্ছেন দিনমজুর

দিন যতই যাচ্ছে করোনা ততই বেড়ে চলছে। তবে দুঃখের বিষয় হলেও সত্য যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে না একদল মানুষ। এভাবে চলতে থাকলে করোনা অনেক ভয়াবহ রুপ ধারণ করবে বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

নতুন খবর হচ্ছে, দিনমজুর ছিলেন। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউনের পর কাজ হারান তিনি। এরপর ইউটিউবের ব্লগিং শুরু করেন। এখন মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করছেন তিনি। তাও আবার কিছু না, শুধু খাবারের ভিডিও পোস্ট করে কাড়ি কাড়ি টাকা আয় করছেন ইসাক মুন্ডার নামের এই যুবক। খবর টাইমস নাউ নিউজের।

ভারতের ওড়িশার সম্বলপুর জেলার বাবুপালির বাসিন্দা ইসাক। বন্ধুর মোবাইল ফোনে কিছু ভিডিও দেখার পর নিজেই একটি ইউটিউব চ্যানেল খোলার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। এরপরই বাজিমাত। ৩৫ বছর বয়সী ইসাক ৩ হাজার ‍রুপি ঋণ নিয়ে একটি স্মার্টফোন কেনেন। পরে ‘ইসাক মুন্ডা ইটিং’ নামে চ্যানেল খুলে নিজের খাওয়ার ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করেন তিনি।

ইসাক বলেন, ৩ হাজার রুপি ঋণ নিয়ে নিজের প্রথম স্মার্টফোন কিনে ভিডিও বানাই। আমার প্রথম ভিডিও প্রায় ৫ লাখ বার ভিউ হয়। আমাদের গ্রামের জীবনযাত্রা এবং খাওয়াদাওয়া নিয়ে ভিডিও পোস্ট করি আমি। আমার ভিডিও যে এত মানুষ দেখেন তাতে আমি দারুণ খুশি। এখন আমার ভালো আয় হচ্ছে।

ইউটিউবে প্রথম ভিডিও পোস্ট করার তিন মাস পর ইসাকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৩৭ হাজার রুপি আসে। এর তিন মাস পর তার অ্যাকাউন্টে আরও ৫ লাখ রুপি আসে। এ পর্যন্ত ২৫০টির বেশি ভিডিও আপলোড করেছেন ইসাক। তার চ্যানেলে ৭ লাখের বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে।