জরিমানা নয়, টমটম চালকদের খাদ্য সহায়তা দিলেন ডিসি

কঠোর লকডাউনের অষ্টম দিন বৃহস্পতিবার উখিয়ায় টমটম নিয়ে ঘর থেকে বের হয়েছিলেন চালকেরা। এদিন সকালে উখিয়া সদরে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত তাদের ৪০টি টমটম জব্দ করে।

তবে জরিমানা আদায় না করে উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বিকেলে উখিয়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে ওই ৪০ জন চালকের হাতে জরুরি খাদ্য সহায়তা তুলে দেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ।

উখিয়া সদরের টমটম চালক নুরুল আলম বলেন, ‘আমরা ভেবেছিলাম, আমাদের জেল-জরিমানা করা হবে। কিন্তু ডিসি স্যার খাবার দিলেন। খুব ভালো লাগছে। লকডাউনের বাকি দিনগুলোতে টমটম না চালালেও আমাদের কোনো অসুবিধা হবে না।’

জেলা প্রশাসক মামুনুর রশীদ বলেন, বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে কঠোর হওয়ার পাশাপাশি কর্মহীন মানুষের কথা ভেবে তাদের সহায়তা প্রদান করছে জেলা প্রশাসন। ২১টি ক্যাটাগরি করে মানুষজনকে জরুরি এই সাহায্য দেওয়া হচ্ছে।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘মানবিক দিক বিবেচনায় আমরা তাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী প্রদান করেছি।

এছাড়া লকডাউনে ৩৩৩-এ কল করা উপজেলার শতাধিক মানুষকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে আমরা যেমন তৎপর তেমনি কর্মহীন মানুষদের পাশে দাঁড়াতে সবসময় প্রস্তুত।’

এদিকে স্বাস্থ্যবিধি না মানা ও লকডাউনের বিধিনিষেধ ভঙ্গ করায় গত সাতদিনে উখিয়ায় ১২২ মামলায় ১ লাখ ৭৬ হাজার টাকা জরিমানা ও ৩ জনকে বিনাশ্রমে কারাদণ্ড দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।