‘মনে পড়ে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র ৩৭তম বিসিএস-এ প্রথম (প্রশাসন) হওয়া ভাইটির কথা?’

মনে পড়ে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র ৩৭তম বিসিএস-এ প্রথম (প্রশাসন) হওয়া ভাইটির কথা! উনার নাম ত্বকী ফয়সাল, দায়িত্বরত আছেন খুলনা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার এবং নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট পদে।

শিক্ষাজীবন থেকেই উনি যে সুন্নাতী লিবাসকে লালন করেছিলেন, একজন বিসিএস ক্যাডার, ম্যজিস্ট্রেট হওয়ার পরও তিনি সে লিবাসকে মানিয়ে নিয়েছেন।
আলহামদুলিল্লাহ।

মাসুম বিল্লাহ ভাইয়ের এই পোস্ট দেখে আমার কিছু ভাইয়ের কথা মনে পড়লো। যারা দাঁড়ি কিংবা সুন্নাতি লিবাস ধারণ করতে চান না কারণ- তাদের চাকরি হবে না অথবা অন্য কিছু ভেবে পুলিশ ধরে ফেলবে!

অথচ এই ভাইয়ের দাঁড়ি কিংবা লিবাসের কারণে প্রথম শ্রেণির জব আটকা পড়েনি এবং পুলিশে ধরা তো দূরের কথা এখন উনার কমান্ড পুলিশ, র‍্যাব, আর্মি পর্যন্ত মানতে হয় ক্ষেত্র বিশেষে!

একেবারে সমস্যা হয় না তা কিন্তু না। তবে সেটা খুব কম। আমি এমন অনেক মানুষকে চিনি যারা পুরা সুন্নাতি লিবাসে উচ্চ পদে জব করতেছেন। আসল সমস্যা হচ্ছে যোগ্যতা।

যদি আমরা যোগ্যতা অর্জন করতে পারি সব বাধা অতিক্রম করা সম্ভব। যদি যোগ্যতা থাকে তাহলে এইগুলা কখনো বাধা হয়ে দাঁড়াবে না ইন শা আল্লাহতালা।