একজন ফকিরের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মিললো ৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা!

একজন ফকিরের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মিললো প্রায় ৯ লাখ ডলার। বাংলাদেশি টাকায় যা ৭ কোটি ৬০ লাখের বেশি। ওয়াফা মোহা’ম্ম’দ আওয়াদ নামে লেবাবনের এক নারীর ব্যাংক এ্যাকাউন্টে এই বিপুল পরিমাণ অর্থের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের রাজস্ব বিভাগের অনুরোধে জামাল ট্রাস্ট ব্যাংক বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর এ বি’ষয়টি সামনে আসে। গত আগস্টে লেবাননের সশ’স্ত্র গো’ষ্ঠী হিজবুল্লাহকে সহায়তার অ’ভিযোগে ব্যাংটির ওপর নিষে'’ধাজ্ঞা আরোপ করে যুক্তরাষ্ট্র।

এরপর লেবাননের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর রিয়াদ সালামেহ জামাল ব্যাংকের গ্রাহকদের আশ্বস্ত করেন যে, তাদের আমানত এবং অর্থ নিরাপ'’দ আছে। বুধবার 'বিকেলে ওয়াফা মোহা’ম্মা’দ আওয়াদের নামে দুটি চেক ইস্যু করে লেবানিজ সেন্ট্রাল ব্যাংক। যার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

যা প্রমাণ করে, ওই ভিক্ষুক একজন কোটিপতি ছিলেন। ওই নারী হাজি ওয়াফা মোহা’ম্মা’দ আওয়াদ নামে পরিচিত। সিডন শহরের একটি হাসপা'তালের সামনে তিনি প্রতিদিন ভিক্ষা করেন। হানা নামে ওই হাসপা'তালের এক নার্স গাল্ফ নিউজকে বলেন, ওয়াফা একজন ভিক্ষুক হিসেবেই পরিচিত। বেশিরভাগ সময়ই তিনি হাসপা'তালের গেটে ভিক্ষা করেন।

গত প্রায় ১০ বছর ধরে তিনি এই কাজ করছেন। আশপাশের সবাই তাকে চেনে। এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পর এখন তিনি শহরের সবচেয়ে আলোচিত ইস্যু।