অবশেষে খোঁজ মিললো বাস থেকে ফেলে দেয়া সেই নারীর

গত দুইদিন ধরে খোঁজাখুজির পর অবশেষে পাওয়া গেছে এন মল্লিক পরিবহনের বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া বাকপ্রতিব'ন্ধী ওই নারীকে। মঙ্গলবার (৯ মার্চ) সকালে ঢাকার নবাবগঞ্জের টিকরপুর এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আনুমানিক ২৫ বছর বয়সী ওই নারীর নাম মিষ্টি ওরফে শিল্পী। সে ঢাকার কামর'াঙ্গীরচরের জাউলাহাটির মতলব খানের মেয়ে। তার স্বামীর নাম আমির হোসেন মোল্লা।
নবাবগঞ্জ থা'না সূত্রে জানা যায়, গত রোববার (৭ মার্চ) সকালে নবাবগঞ্জ-ঢাকা সড়কে চলাচলকারী এন মল্লিক পরিবহনের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি বাস থেকে বাকপ্রতিব'ন্ধী ওই নারীকে ধাক্কা

দিয়ে ফেলে দেওয়ার ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হলে জনগণের মধ্যে ব্যাপক জনরোষের সৃষ্টি হয়। এরপরই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য মেয়েটির সন্ধান করতে থাকেন।

অবশেষে আজ মঙ্গলবার নবাবগঞ্জ থা'নার অফিসার ইনচার্জ মো. সিরাজুল ইসলাম শেখ উপজে’লার টিকরপুর থেকে বাকপ্রতিব'ন্ধী ওই নারীকে উদ্ধার করে কেরানীগঞ্জ মডেল থা'না পুলিশের নিকট হস্তান্তর করেন। এর আগে এন মল্লিক বাসটির চালক মো. সবুজ (২৫) ও হেলপার নাহিদ (১৯)কে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-১০ এর মেজর শাহরিয়ার জিয়াউর রহমান।

ভিডিওতে দেখা যায়, সড়কে চলাচলকারী এন মল্লিক পরিবহনের (ঢাকা মেট্রো-ব-১৩-১৫২১) শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি বাস থেকে হঠাৎ করে এক নারীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়া হয়। এই ঘটনা চোখের সামনে দেখে 'হতবাক হয়ে যায় আশপাশের লোকজন।

তারা আঘা'তপ্রা'প্ত ওই নারীকে প্রাথমিকভাবে টেনে তুলে তাকে সুস্থ করার চেষ্টা করেন। কথা বলার চেষ্টা করেন ওই নারীর সাথে। আ'হত ওই নারী ইশারায় জানান তিনি কথা বলতে পারেন না। পরে তাঁর হাতে একটি কলম দেয়া দেয়া হলে পুরো ঘটনা লিখে জানান তিনি।

ওই নারী লেখেন, “বাসটি থেকে কোনাখোলা থেকে উঠাইছে, ভাড়া নাই, এন মল্লিক আমার থেকে কোনওদিন ভাড়া নেয় না, কিন্তু ওরা ভাড়া চায়, দিতে না পারায় এমন ব্যবহার!”