বিসিএসের জন্যই চ্যাম্পিয়নস লিগ ত্যাগ করলেন মেসি-রোনালদো

আগের রাতে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এবং পরের রাতে লিওনেল মেসির চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায়। রাতারাতি এমন বিদায় অনেক ফুটবলভক্তকে 'হতাশার সাগরে ডুবালেও মেসি-রোনালদোর মা–বাবাকে ভাসিয়েছে আনন্দের সাগরে। কারণ, তাঁদের সন্তানেরা যে আসন্ন বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষায় অংশ নিতে যাচ্ছেন। একটি নয় দুটি নয়, চার–চারটি অবিশ্বস্ত সূত্র ‘একটু থামুন’কে বি'ষয়টি নিশ্চিত করেছে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের গত ১৬ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম কোয়ার্টার ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে মেসি কিংবা রোনালদোকে ছাড়াই। মেসিভক্ত এবং রোনালদোভক্তরা এটা মেনে নিতে না পারলেও বিভিন্ন কোচিং সেন্টারের শিক্ষক এবং নীলক্ষেতের বই ব্যবসায়ীরা দারুণ খুশি। তাদের বই ও সাজেশন পেপার পড়েই ১৯ মা'র্চ বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা দেবেন এই দুই মহাতারকা।

অবিশ্বস্ত সূত্রগু'লো জানিয়েছে, মেসি-রোনালদো—দুজনই এখন আছেন বাংলাদেশে। গতকাল নীলক্ষেতের এক বইয়ের দোকানের সামনে পায়চারী করার সময় ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে হঠাৎ এ রকম বিদায়ের প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে আমা'দের এক অবিশ্বস্ত সূত্রকে তিনি বলেন, ‘আসলে ইচ্ছা করেই দলকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিইনি। কোয়ার্টার ফাইনালে গেলে দলের সঙ্গে ইউরোপেই থাকতে 'হতো আমাকে।

এদিকে ১৯ তারিখে আমা'র বিসিএস পরীক্ষা। ইউরোপ থেকে তো আর জুমে পরীক্ষা দেওয়া যেত না! তাই এক স'প্ত াহ ভালোভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্যই চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছি। আর যাহোক, চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় বিসিএসের চেয়ে বড় 'হতে পারে না।’

রোনালদোর সঙ্গে কথা বলে ফেরার পথেই ওই অবিশ্বস্ত সূত্র নিউমা'র্কেট–সংল'গ্ন ওভারব্রিজের নিচে বই হাতে বাসের জন্য অ’পেক্ষারত মেসির দেখা পান। আপনি কেন চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নিলেন? এই প্রশ্ন করার আগেই মেসি জানান, ‘চ্যাম্পিয়নস লিগ তো প্রতিবছরই খেলতে পারি। কিন্তু বিসিএস কি প্রতিবছর দিতে পারব? পাঁচবার চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতলেও একবারের জন্য বিসিএস ক্যাডার হয়ে ওঠা হয়নি এখনো!

তাহলে বুঝুন, কোনটা বেশি দামি? চাইলে আমিও বার্সেলোনাকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিয়ে যেতে পারতাম। কিন্তু এর সঙ্গে সঙ্গেই শেষ হয়ে যেত আমা'র বিসিএসের স্বপ্ন। আমা'র মা–বাবা, আ'ত্মীয়, পাড়া–প্রতিবেশী—সবাই আমা'র দিকে তাকিয়ে আছে, কবে আমি ক্যাডার হব। আর তাদের সেই ইচ্ছা জলাঞ্জলি দিয়ে আমি কোয়ার্টার ফাইনাল খেলব? এতটাই অমান'বিক আমি?’

ফুটবল খেলার পাশাপাশি বিসিএসের প্রতি রোনালদো এবং মেসির এমন আগ্রহ দেখে দেশের অনেক ফুটবলভক্ত এবং ফুটবলার ফুটবল ছেড়ে দিয়ে নীলক্ষেতের দিকে যাত্রা করছেন বলে জানা গেছে। তেমনই একজন নীলক্ষেতগামী পথিকের সঙ্গে মেসি-রোনালদোর চ্যাম্পিয়নস লিগ ছেড়ে চলে আসার প্রসঙ্গে অনুভূ'ত ি জানতে চাইলে তিনি বরং উল্টো প্রশ্ন করে বসেন, ‘আচ্ছা ভাই, গত বছর যেন কোন দল চ্যাম্পিয়নস লিগ জিতেছিল? এটা তো বিসিএসে আসতেও পারে।’

অবশ্য তার পাশের পথিক অনুভূ'ত ি জানাতে ভুল করেননি, ‘ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছা ছিল ফুটবলার হব। যে মেসি-রোনালদোকে দেখে এ রকম ইচ্ছার উদয় হয়েছিল, তারা এখন চ্যাম্পিয়নস লিগ ছেড়ে বিসিএসের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তাদের ফুটবল দেখে যদি ফুটবলার হওয়ার ইচ্ছা জাগ্রত হয়, তাহলে তাদের বিসিএসের প্রতি আবেগ দেখে ক্যাডার হওয়ার ইচ্ছা জাগ্রত হওয়া স্বাভা'বিক নয় কি?’

নিঃসন্দে'হে 'হতাশ ভক্তরা এখন জেনে গেছেন মেসি-রোনালদোর চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নেওয়ার মূল কারণ। পরীক্ষার কেন্দ্র কোথায় পড়েছে এবং পরীক্ষার দিন কেন্দ্রে কীভাবে যাব'েন, এ বি'ষয়ে জানতে মেসি-রোনালদোকে ফোন করা হলে তারা উভয়ই জানান, ‘পড়াশোনা নিয়ে ব্যস্ত আছি। ১৯ তারিখের পরে ফোন দেন।’