করোনার ভ্যাকসিন নিতে হাদিসের যুক্তি দিলেন আজহারী

প্রাণঘা'তী করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন নেয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারী। আজ শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এ সম্পর্কে পোস্ট দেন। তার এই পোষ্টটিতে অল্প সময়ে ব্যাপক সাড়া দেন মানুষজন।

তার সেই পোস্টটি পাঠকদের জন্য তুলে ধ’রা হলো-
‘অ'সুস্থতা আল্লাহ তাআলার পক্ষ থেকে একটি পরীক্ষা। অ'সুস্থ হলে যথাযথ চিকিৎসা নেয়া রাসুলুল্লাহর সুন্নাহ। রাসুল (ﷺ) নিজে অ'সুস্থ হলে যেমনি চিকিৎসা গ্রহণ করতেন, ঠিক তেমনি কাউকে অ'সুস্থ 'হতে দেখলেও চিকিৎসা নিতে বলতেন।

আবু হুরায়রা (রা:) 'হতে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (ﷺ) ইরশাদ করেন: “আল্লাহ তাআলা এমন কোন রোগ সৃষ্টি করেননি, যার নিরাময়ের উপকরণ তিনি সৃষ্টি করেননি।”
[সহিহ বুখারি, হাদিস নম্বর ৫৬৭৮]

আল্লাহ তাআলার অশেষ কৃপায়, চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরিতে সক্ষ'ম হয়েছেন। এটা আল্লাহ তাআলার বিশেষ মেহেরবানী। তাই, আমা'দের প্রত্যেকের উচিত— ব্যক্তিগত সুরক্ষা নিশ্চিত করতে, এই প্রতিষেধকটি গ্রহণ করা। বৈশ্'বিক এ মহামারিতে আমর'া আমা'দের অনেক বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বজন এবং অনেক কাছের মানুষকে হারিয়েছি, বিচ্ছেদের সে ক্ষত এখনো শুকায়নি। তাই, নতুন করে আমর'া আমা'দের আর কোন প্রিয়জনদের হারাতে চাই না।

তিনি আরও লেখেন, বাংলাদেশে দেয়া ভ্যাকসিনটির ব্যাপারে যতদূর জানতে পেরেছি, ভ্যাকসিনটি কার্যকরী হিসেবে প্রমাণিত এবং এখন পর্যন্ত তেমন কোন মেজর সাইড ইফেক্ট নেই। ইতোমধ্যে দেশব্যাপী বিনামূল্যে করোনার টিকা প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তাই, সবাই রেজিস্ট্রেশন করুন, ভ্যাকসিন নিন এবং নিরাপ'দে থাকুন।

মাস্ক পড়া, স্যানিটাইজার ব্যবহার এবং ভ্যাকসিন নেয়ার পাশাপাশি, নিম্নে উল্লেখিত দোয়াটিও প্রতিদিন বেশি বেশি পাঠ করুন। কারণ আমর'া বিশ্বা'স করি যে, রোগের সৃষ্টিকর্তা হলেন আল্লাহ, আবার আরোগ্যদাতাও একমাত্র আল্লাহ। তাই সব ধরনের সাবধানতা, সতর্কতা এবং চিকিৎসা গ্রহণের পর, সুস্থতা কামনায় আমর'া একমাত্র মহান আল্লাহ তা’আলার উপরই পূর্ণ তাওয়াক্কুল করব।

‎اللَّهمَّ إِنِّي أَعُوُذُ بِكَ مِنَ الْبرَصِ، وَالجُنُونِ، والجُذَامِ، ومن سّيءِ الأَسْقامِ.

বাংলা উচ্চারণ:

আল্লাহু’ম্মা ইন্নি আ’য়ুজু'বিকা মিনাল বারাছ, ওয়াল জুনুন, ওয়াল জুযাম, ওয়া মিন সায়্যিইল আসক্বাম।

বাংলা অর্থ:-

হে আল্লাহ, আমি তোমার নিকট ধবল, কুষ্ঠ এবং উন্মা'দনা সহ সব ধরনের কঠিন দূরারোগ্য ব্যাধি থেকে পানাহ চাই।

[সুনান আবু দাউদ, ১৫৫৪]