৪ বছরের শিশুর কোলে দুধের সন্তান, পাহারা দিলো পুলিশ

আশপাশের সব নারী এসেছেন ভোটকেন্দ্রে। সংসারের সব ক’র্ম ব্যস্ততার মাঝেও শেষ মুহূর্তে এসে ভোট দিলেন এক মা। তিনি দুই মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে আসেন। তবে এক মেয়ের বয়স চার বছর, আরেক মেয়ের বয়স পাঁচ মাস। আর দুধের শিশুটিকে চার বছরের মেয়ের কোলে রেখে ভোট দিতে যান তিনি। এ সময় দুই শিশুকে পাহারা দেয় পুলিশ।

এমনই চিত্রের দেখা মিলেছে নেত্রকোনা সদর পৌরসভা নির্বাচনে। সকাল থেকে 'বিকেল পর্যন্ত চলা বিরতিহী’ন ভোটগ্রহণের মাঝেই শহরের জামিয়া মিফতাহুল উলুম আবাসিক মা'দরাসা কেন্দ্রে এমন চিত্রের দেখা মেলে। দুধের শিশু রেখে মায়ের ভোট দেয়ার চিত্র এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

ছবিতে দেখা গেছে, দুই শিশুর পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন ওই কেন্দ্রের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্বে থাকা এএসপি (দুর্গাপুর সার্কেল) মাহমুদা শারমিন নেলি।

প্রথমবারের মতো ইভিএমে ভোট হওয়ায় জামিয়া মিফতাহুল উলুম আবাসিক মা'দরাসা কেন্দ্রে অনেকেই ভোট দিতে আসেন। তবে মায়ের ভোট শেষ না হওয়া পর্যন্ত ওই শিশুটির পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন এএসপি মাহমুদা শারমিন নেলি। কেন্দ্র থেকে ভোট দিয়ে বের হওয়ার পর দুই শিশুকে মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেন তিনি।

এএসপি (দুর্গাপুর সার্কেল) মাহমুদা শারমিন নেলি বলেন, দুপুরে জামিয়া মিফতাহুল উলুম আবাসিক মা'দরাসা কেন্দ্রে হঠাৎ একটি শিশুর কোলে আরেকটি শিশুকে দেখি। পরে জানতে পারি তাদের মা ভোট দিতে গেছেন। তখন চার বছরের শিশুটির সঙ্গে কথা বলি। এরপর ভোট দেয়া শেষে মায়ের হাতে তাদের তুলে দেই।