নায়িকার ধমক খেয়ে সারারাত নাচলেন শাহরুখ-সালমান

শাহরুখ খান এবং সালমান খান দুজনে একসঙ্গে বেশ কিছু সিনেমায়। তারমধ্যে সবার আগে আসবে ‘করণ অর্জুন’ সিনেমার নাম। আজও দুই তারকার সেরা ছবির একটি হিসেবে অভিহিত করা হয় এটিকে।

সময়ের ব্যবধানে আজ দুজনেই বলিউডের সবচেয়ে বড় তারকা। তাদের জনপ্রিয়তার কাছে পরিচালক, প্রযোজকদেরও কথা চলে না। শুটিংয়ের সময় তারা ঠিক যেভাবে চান সেভাবেই সবকিছু চলে।

কিন্তু জানেন কি একবার এক নায়িকার ধমকের সামনে তারা দু’জনেই জবুথবু হয়ে গিয়েছিলেন! পর দিন একদম চুপচাপ শুটিং করেছিলেন।

১৯৯৫ সালের ‘করণ-অর্জুন’ ছবিতে শাহরুখ এবং সালমানের সঙ্গে অভিনয় করেছিলেন মমতা কুলকার্নি। সেখানে শাহরুখ এবং সালমান প্রথম থেকেই শুটিং করছিলেন ঢিলে ভাব নিয়ে। অনেক ক্ষেত্রেই তাদের জন্য বারবার একই দৃশ্য শুট করতে হচ্ছিল।

কিন্তু শাহরুখ-সলমনের জনপ্রিয়তার দিকে তাকিয়ে তাদের কিছুই বলতে পারছিলেন না ছবির পরিচালক। মনে মনে বিরক্ত হলেও তাদের সহকর্মীরাও মুখে তা প্রকাশ করছিলেন না।

বাকিদের মতো দুই নায়কের উপর বিরক্ত ছিলেন ছবির নায়িকা মমতাও। এই ছবিতে একটি নাচের শুটিংয়ের সময় শেষে বিরক্তি আর চেপে রাখতে না পেরে শাহরুখ-সালমানকে খুব বকাবকি করেন মমতা।

বকা খেয়ে দুই নায়ক সারারাত নাচলেন। নাচের প্র্যাকটিস করে পরদিন শুটিংয়ে এসে বাজিমাত করে দিলেন। তাদের কোনো শটই রি-টেক নিতে হয়নি। উল্টো মমতাকেই কয়েকবার রি-টেক দিতে হয়েছিলো। লজ্জায় সেদিন সেটে কেঁদে ফেলেছিলেন মমতা।

ছবি মুক্তির পর এক সাক্ষাৎকারে নিজেই এই ঘটনার কথা জানিয়েছিলেন মমতা। আর ‘দিলওয়ালে’ ছবি মুক্তির সময় সালমানের বিগ বস-এ এসে ওই ঘটনার কথা বলেছিলেন শাহরুখও।