আমি রাতে ঘুমতে পারি না , বিয়ের পাত্রী পেতে থানায় হাজির যুবক

সম্ভব হলে কেউ নিজের মনের মানুষকে বিয়ে করেন, কেউ দারস্থ হন ঘট’কের। আধুনি যুগে কেউ কেউ আবার বিয়ের জন্য ম্যাট্রিমনিয়াল সাইটেও অ্যাকাউন্ট খোলেন। তবে ভা’রতের উত্তরপ্রদেশের এক যুবক বিয়ের পাত্রী পেতে যা করেছেন, তাতে চোখ কপালে উঠেছে সবারই।

জিনিউজ জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশ পু’লিশের কাছে পাত্রী খুঁজে দেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন আজিম নামে ২৬ বছর বয়সী এক যুবক। গত পাঁচ বছর ধরেই পরিবারের লোকজন আজিমের বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছেন, কিন্তু তাতে সাফল্য মেলেনি। তাই এবার নিজেই থা’নায় হাজির হয়েছেন আজিম। দাবি, তার জন্য উপযু’ক্ত পাত্রী খোঁজার দায়িত্ব নিতে হবে পু’লিশকেই!

আজিম বেকারও নন। রাজ্যের শামলি জে’লার কাই’রানা শহরে প্রসাধনীর দোকান চালান তিনি। কিন্তু তারপরও পাত্রী মিলছে না আজিমের। কারণ তার দৈহিক উচ্চতা। মাত্র ২ ফুট উচ্চতার আজিম কম উচ্চতার কারণেই বিয়ের পাত্রী পাচ্ছেন না বলে দাবি তার পরিবারের।

জানা গেছে, ছয় ভাইবোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট আজিম। বহুদিন ধরেই পরিবার তার বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজছে। কিন্তু ক্রমেই দীর্ঘ হয়েছে অ’পেক্ষা, সেই সঙ্গে দিনে দিনে বেড়েছে ‘'হতাশা।

আজিমের কথায়, ‘আমি রাতে ঘু’মতে পারি না। এতদিন ধরে চে’'ষ্টা করছি, তবুও পাত্রী পাওয়া যাচ্ছে না। আমি কী’ আমা’র জীবনটা কারও সঙ্গে ভাগ করে নিতে পারব না?’

উত্তরপ্রদেশ পু’লিশের কর্মক’র্তা সৎপাল সিং বলেন, ওই যুবক আমা’দের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন পাত্রী খুঁজে দেওয়ার। জানি না আম’রা এক্ষেত্রে কী’ করতে পারি? কোনও যুগলের মধ্যে সমস্যা হলে তা মেটাতে সাহায্য করতে পারি আম’রা। কিন্তু কাউকে পাত্রী খুঁজে দেওয়া আমা’দের কাজ নয়।