ক্ষুব্ধ পরীমনি এবার লিখলেন, ‘ফাক মি মোর’

মাদক মামলায় বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) আদালতে হাজিরা দিয়েছেন ঢালিউড চিত্রনায়িকা পরীমনি। বেলা পৌনে ১১টার দিকে আদালতে হাজির হয়েছেন তিনি। মুখ্য মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে হাজিরা দিয়েছেন পরীমনি।

পরীমনির পরবর্তী হাজিরা তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ১০ অক্টোবর। বুধবার সকালে ভিড় ঠেলে আদালতে যেতে হয়েছে পরীমনিকে। হাজিরা দিয়ে উৎসুক জনতার উদ্দেশ্যে হাত নেড়েছেন তিনি।

এ সময় তার ডান হাতে মেহেদী দিয়ে নতুন লেখা দেখা গেছে। পরীমনি লিখেছেন, ‘ফাক (মিডল ফিংগার সাইন) মি মোর’।

যা নিয়ে রীতিমতো আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। বোঝাই যাচ্ছে, পরীমনি বেশ ক্ষুব্ধ। তাই তিনি চিহ্নটি ব্যবহার করেছেন। সাধারণত রাগ, ঘৃণা, অপমান বা আক্রমণাত্মক বোঝাতে চিহ্নটি ব্যবহার করা হয়।

হাজিরা দিয়ে ফেরার পথে নিজের ফেসবুকে একটি সেলফি পোস্ট করেছেন পরীমনি। তাতে তার হাতের লেখাটি স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। ক্যাপশনে পরীমনি লিখেছেন, ‘একটি বিষয় পরিষ্কার করে দেই।’ এ প্রতিবেদন করা পর্যন্ত পরীমনির এ ছবিটিতে ৪১০ জনেরও বেশি শেয়ার করেছেন।

ঠিক কী কারণে এ কথাটি লিখেছেন পরীমনি তা জানতে তার ব্যক্তিগত নাম্বারে যোগাযোগ করলে সেটি বন্ধ পাওয়া গেছে। তবে দেশীয় একটি সংবাদমাধ্যমকে এ নায়িকা বলেছেন, ‘কী লিখেছি আপনারা বুঝে নেন। আর এর মাধ্যমে আমি বোঝাতে চাচ্ছি, শেষ পর্যন্ত লড়াই করতে চাই।

এতো সহজে হাল ছাড়ার মতো লোক নই আমি। যাই হোক না কেন এখানেই আমাকে দমাতে পারবে না। মনে করুন, সেই সব প্রতিবাদী মনোভাব আজকের সিম্বলের মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছি। এটা ছিল মেটাফোর।’

এর আগে কাশিমপুর কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হওয়ার সময় পরীমনি তার ডান হাতের তালুতে লিখেছিলেন, ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ।’ যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়।