বিয়েবাড়িতে খাবারে মাংস কম, বিয়ের আসরেই বরকে তালাক দিলেন কনে!

বিয়েবাড়িতে খাবারে মাংস কম পড়েছে। তাতেই ক্ষো’ভ ঝা’ড়লেন বরপক্ষ। এ নিয়ে কথা কা’টিকা’টি এক পর্যায়ে হা’তাহা’তিতে গড়ালে প্যান্ডেল পর্যন্ত ভা’ঙচুর করা হয়। এরপর সব মিটমাটের দিকে এগোলেও বেঁকে বসেন কনে। বিয়ে 'হতে না 'হতেই বরপক্ষের চরম অ’ভদ্রতায় বিয়ের আসরেই তৈরি হল ‘তালাকপত্র’। বিয়ের পর নতুন সংসার করার আগেই বিয়ে ভাঙেন তিনি।

শুনতে অবাক লাগলেও, সম্প্রতি এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানের গলসির বাহিরঘন্না গ্রামে। তার কথায়, যারা সামান্য মাংসের জন্য বিয়েবাড়িতে এমন হুলুস্থুল কাণ্ড ঘটাতে পারে, আর যাই হোক তাদের বাড়ির বউ 'হতে পারব না।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়, ঘটনার দিন গলসির বামুনাড়া গ্রামের বাসি’ন্দা বর প্রায় ৭০ জন বরযাত্রী নিয়ে দুপুরে মেয়ের বাড়িতে বিয়ে করতে আসেন। কনের বাবা পেশায় দিনমজুর হলেও, মেয়ের বিয়ের জন্য যথাসা’ধ্য আয়োজন করেছিলেন। সব কিছুই ঠিকঠাক হচ্ছিল। তবে বরপক্ষ খেতে বসতে না বসতেই উ’ত্ত’'প্ত হয়ে ওঠে বিয়ের আসর।

এদিকে, কনের এমন সিদ্ধান্তে প্রথমে কিছুটা চিন্তায় পড়লেও, পরবর্তীতে তাতেই সম্মত হন পাত্রীর বাবাও।তার কথায়, ‘প্রথমে কিছুটা দ্বি’ধায় থাকলেও পরে মেয়ের সিদ্ধান্তকেই সম্মান জানাই। ওই বাড়িতে গেলে ও কিছুতেই ভালো থাকতে পারত না। শুধু পাত্রীর বাবাই নয়, আশপাশের অনেকেই তার এই সিদ্ধান্তকে সমর'্থন জানিয়েছেন।