বর্ধিত বিধিনিষেধে যুক্ত হয়েছে নতুন ২ শর্ত

সাম্প্রতিক সময়ে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশে চলমান বিধিনিষে'ধের (লকডাউন) মেয়াদ আরও ৭ দিন বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। রবিবার (১৬ মে) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

জারিকৃত এ প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, এই বিধিনিষে'ধ আজ মধ্যরাত থেকে আগামী ২৩ মে রবিবার মধ্যরাত পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপ-সচিব রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে পূর্বের সকল বিধিনিষে'ধ বলবৎ রেখে নতুন দুটি শর্ত যুক্ত করা হয়েছে। নতুন যুক্ত করা শর্ত দুটি হচ্ছে:

১. সরকারের রাজস্ব আ'দায়ের সঙ্গে সম্পৃক্ত সকল দফতর বা সংস্থাসমূহ জরুরি পরিসেবার আওতাভু'ক্ত হবে।

২. খাবারের দোকান ও হোটেল রেস্তোরাঁগুলো কেবল খাদ্য 'বিক্রয়/সরবরাহ করতে পারবে।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার প্রথমে গত ৫ এপ্রিল থেকে সাত দিনের জন্য গণপরিবহন চলাচলসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিধিনিষে'ধ জারি করেছিল। পরে তা আরও দুদিন বাড়ানো হয়।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসায় ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত আরও কঠোর বিধিনিষে'ধ দিয়ে ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ শুরু হয়। সেটি পরে ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছিল। এরপর আবার তা ৫ মে পর্যন্ত বাড়ানো হয়, যা আবার বাড়িয়ে ১৬ মে অর্থাৎ আগামীকাল পর্যন্ত করা হয়েছিল।

চলমান এই বিধিনিষে'ধে একই জে’লার মধ্যে গণপরিবহন চলতে পারছে। তবে এক জে’লা থেকে আরেক জে’লায় গণপরিবহন বন্ধ আছে। এ ছাড়া যাত্রীবাহী নৌযান ও ট্রেনও আগের মতো বন্ধ আছে। এর মধ্যে গত ২৫ এপ্রিল থেকে দোকান ও শপিং মল খুলে দেওয়া হয়েছে। খোলা আছে ব্যাংকও। এ ছাড়া জরুরি কার্যক্রমের সঙ্গে জড়িত অফিসগুলোও খোলা।