ছেড়ে দিলেন খান পরিবার, বাবা-মাকে বিদায় জা’নালেন শাহরুখ কন্যা সুহানা

বলিউডের “বাদশাহ” ও বলিউডের “কিং খান” হিসেবে একনামেই যাকে সারা দুনিয়া চেনে তিনি হলেন শাহরুখ খান।তাঁর চলচ্চিত্রের সংখ্যা অগণিত। অসামান্য একজন ব্যাক্তিত্ব তথা অসাধারণ অভিনয় দিয়ে তিনি মন জয় করে নিয়েছেন

সকল মানুষের। হিন্দি চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য ২০০২ সালে ভারত সরকার তাকে পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত করে।১৯৮০ এর দশকের শেষের দিকে বেশ কিছু টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয়ের মাধ্যমে তাঁর অভিনয় জীবন শুরু হয়।

এরপর ১৯৯২ সালে দিওয়ানা ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তিনি চলচ্চিত্র জগতে প্রবেশ করেন।তিনি ডর, বাজীগর, আঞ্জাম চলচ্চিত্রে অভিনয় করে পরিচিতি লাভ করেন। এরপর একে একে বাণিজ্যিকভাবে সফল চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। সেগু’লির মধ্যে অন্যতম হল দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে যায়েঙ্গে, কুছ কুছ হোতা হায়, কাভি খুশি কাভি গাম, দেবদাস ইত্যাদি।

ওয়েলথ এক্স সংস্থার বিচারে বিশ্বের সবচেয়ে নী হলিউড ও বলিউড তারকাদের তালিকায় শাহরুখ খান দ্বিতীয় স্থান অর্জন করে নিয়েছে। তাকে বিশ্বের অন্যতম সফল চলচ্চিত্র তারকা বলে অভিহিত করা হয়।

আর তাঁর মেয়ে সুহানাকে কেই না চেনে। সুহানা নিও ইয়র্ক বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী। আর তাই পড়াশোনা শেষ ক’রতেই ফের দেশ ছে’ড়ে বিদেশের মাটিতে পা রয়েছেন শাহরুখ তনয়া। লকডাউনে পর্বে আমেরিকা ছে’ড়েছিলেন তিনি। এখন লকডাউনে পর্ব শেষ তাই আবার ফি’রে গে’লেন।

সম্প্রতি সুহানা একটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। আর সেই ছবিটি সম্ভবত তাঁর ইউনিভারসিটির গ্রন্থাগারের ছবি। তবে, স’ম্প্রতি সুহানা তাঁর ইন্সট্রাগ্রাম একাউন্টের কমেন্ট সেকশন বন্ধ করে রেখেছেন।

মনে করা হচ্ছে যে, নিজে’র ইমেজ বজায় রাখার জন্যই সুহানা এই কাজটি ক’রেছেন। কেননা, মাঝে মধ্যেই তাকে যেভাবে তার গায়ের, তার পোশাক, তার ফিগার নিয়ে নেটিজেনদের থেকে যে কুরুচিকর মন্তব্য শুনতে হয়েছে তাতেই হয়তো এমন বড় সিধান্ত নিয়েছেন শাহরুখ কন্যা সুহানা।