লজ্জার রেকর্ড সাল্লু ভাইয়ের! বিক্রি হল মাত্র ৮৪টি সিনেমার টিকিট

প্রতিবছর ইদে সলমন খানের ছবি মুক্তি পাবেনা তা কি হয়। করোনা আবহে সিনেমা হলে ব্লকবাস্টার সলমনের সিনেমা মুক্তি না পেলেও বাড়ি বসে কম খরচে সপরিবারের সিনেমা দেখার আনন্দ দিয়েছিলেন ভাইজান।

এই অতিমারিতে বাড়ি বসেই সকল সিনে প্রেমীরা মন ভালো করতে চেয়েছিলেন। ভাইজানের ফ্যানেদের কাছে নতুন ছবির মুক্তি নিয়ে মনে ছিল বেশ আনন্দ। প্রভুদেবা পরিচালিত সলমান ‘রাধে: ইওর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’ মোটেও আনন্দ দেয়নি কোনো ভক্তদের। এই ছবিতে অভিনেত্রীর চরিত্রে দেখা গিয়েছে দিশা পাটানিকে। খলনায়কের চরিত্রে রয়েছেন রণদীপ হুডা।

অন্য দিকে, একটি গানের দৃশ্যে দেখা গিয়েছে জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজকে। এবং একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন জ্যাকি শ্রফ। তবু এই ছবি কারোরই এই পছন্দ হয়নি। সমালোচকদের মতে এও সিনেমার গল্পে কোনো মাথামুণ্ডু নেই। অনেকে বলেছেন, ভাইজানের প্রতীক্ষিত এই ছবিটি আসলে

সালমান খানের ‘ওয়ান্টেড’ ছবির সিক্যুয়াল ছাড়া কিচ্ছু নয়। চিত্র প্রেমীরা এই সিনেমা নিয়ে যতটা প্রত্যাশা করেছিলেন তা কিছুই হয়নি। আই এম ডি বি তে সলমানের রাধের রেটিং মাত্র ১.৮। যা অন্যান সিনেমার থেকে সবচেয়ে কম।

জানা যাচ্ছে, গত ১১ জুন মহারাষ্ট্রের মালেগাঁও তে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা শিথিল হতে ইনজয় ড্রাইভ-ইন সিনেমা হল আর ঔরঙ্গাবাদের সিনেপ্লেক্সে রাধে সিনেমার স্ক্রিনিং শুরু হয়। মালেগাঁওয়ের সিনেমা হলে দুটি শো, আর ঔরঙ্গাবাদের সিনেমা হলে ৪টি শো রাখা হয়।

তবে মালেগাঁওয়ের সিনেমা হলে মাত্র ৩ হাজার ৫৯৭ টাকার টিকিট বিক্রি হয় আর ঔরঙ্গাবাদের সিনেমাহলে আরো কম। মাত্র ২ হাজার ৪২০ টাকার টিকিট বিক্রি হয়। এরপর তো মালেগাঁও সিনেমা হলের দ্বিতীয় শো বাতিল করতে হয় একটিও দর্শক না থাকার কারণে। মাত্র ৮৪টি টিকিট বিক্রি হয়েছে।

দর্শকরা এই ছবি নিয়ে এতটাই উচ্ছ্বসিত ছিলেন যে, মুক্তির দিন কিছু সময়ের জন্য ক্র‍্যাশ করে গিয়েছিল ওটিটি প্ল্যাটফর্ম Zee 5 এবং Zee plex। কিন্তু সমস্ত আশাতেই কার্যত জল ঢেলে দিয়েছে ছবিটি। ইমডব তে এই ছবির রেটিং মাত্র ২। এই সাইটে সলমন খানের যে সমস্ত ছবিকে এর আগে রেটিং দেওয়া হয়েছে, তাঁর মধ্যে সবচেয়ে কম নম্বর পেয়েছিল ‘রেস ৩’ (১.৯)। এবার তারপরেই উঠে এলো রাধে সিনেমা। এই সিনেমা সলমান খানের সবচেয়ে বড় ব্যর্থতা নাকি।