টাকা পয়সা বড় কথা নয়, একটি অসহায় মেয়েকে বিয়ে দিতে পেরেছি এটাই বড় পাওয়া

লালমনিরহাট পৌরসভার নিউ কলোনি এলাকার মাহফুজা খাতুন কবিতা (২০) নামে এক পিতাহারা মেয়েকে ধুমধাম করে নিজ খরচে বিয়ে দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা সুমন খান। শুক্রবার (১৮ জুন) সন্ধ্যায় শহরের কালিবাড়ী এলাকায় সুমন খানের বাড়িতেই সম্পন্ন হয় বিয়ের আনুষ্ঠাকিতা।

মাহফুজা খাতুন পৌরসভার নিউ কলোনি এলাকার মৃত কবিদুল মিয়ার মেয়ে। রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার হাজিপাড়া গ্রামের আজিজার রহমানের ছেলের সঙ্গে বিয়ে হয়েছে তার।

জানা গেছে, ৮ বছর আগে দিনমজুর কবিদুল মিয়া মারা যান। অনেক কষ্টে স্ত্রী নুর নাহার তাদের একমাত্র মেয়ে মাহফুজাকে বড় করেন। এরপর তার বিয়ের দায়িত্ব নেন লালমনিরহাট চেম্বার অব কমার্সের সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতা সুমন খান।

তিনি নিজ বাড়িতে নিজ খরচে সকল আনুষ্ঠানিকতা মেনেই বিয়ের আয়োজন করেন। বর বিয়েতে কোনো যৌতুক না চাইলেও তিনি স্বেচ্ছায় বরকে লক্ষাধিক টাকার একটি মোটরসাইকেল উপহার দেন। কন্যাকেও সাজিয়ে দেন লক্ষাধিক টাকার সোনার গহনা দিয়ে।

শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলে বিয়ের অনুষ্ঠান। সকাল থেকেই চলে রান্না ও অতিথি আপ্যায়নের আয়োজন। দুপুরে কনেপক্ষের অতিথিদের আপ্যায়ন করানো হয়। বিকেলে কয়েকটি মাইক্রোবাসযোগে আসেন বর ও বরপক্ষের অতিথিবৃন্দ। তাদের আপ্যায়ন ও বিয়ের আনু্ষ্ঠানিকতা শেষে শেষে সন্ধ্যায় বর-কনেকে বিদায় দেয়া হয়।

এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ নেতা সুমন খান বলেন, ‘টাকা পয়সা বড় কথা নয়। একটি অসহায় মেয়েকে নিজের মেয়ে মনে করে বিয়ে দিতে পেরেছি, আমার কাছে এটাই বড় পাওয়া। অসহায়দের পাশে দাঁড়ালে আল্লাহও খুশি হন।’

বিয়ের অনুষ্ঠানে জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আতিকুর রহমান কুদ্দুস, যুবলীগ নেতা নুর আলমসহ অন্যান্য আওয়ামী লীগ নেতা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।