তোমায় ছেড়ে থাকতে হবে কখনো ভাবিনি, একরত্তি ইউভানের জন্য মন খারাপ মা শুভশ্রীর

ইউভান। বয়স মাত্র সাত মাস। জন্মের পর থেকেই নয় বাবার কোলে নাহলে মায়ের কোলে মানুষ হয়। অন্নপ্রাশন মিটতে না মিটতে বাব বেজায় ব্যস্ত হয়ে পড়ে ভোটের কাজে সে। হ্যাঁ এবছর বিধানসভা ভোটে তৃণমূল কংগ্রে’সের প্রার্থী। তাই ইউভানকে ছেড়ে ভোটের প্রচারে বেশ ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। কলকাতার বিলাসবহুল আবাসনে শুভশ্রী, রাজের মা এবং সদ্যোজাত সন্তান তিনজনেই অ’পেক্ষা করছেন।

গত প্রায় এক মাস ধরে ভোটের প্রচার কাজ করছেন রাজ। মাঝে মাঝে ভোটের প্রচারে স্ত্রীকে পাশে পেয়েছেন রাজ। রাজের মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার দিন শুভশ্রী ইউভানকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন ব্যরাকপুরে। এর মধ্যেই আবার বাংলা ফিল্মফেয়ার অ্যায়ার্ড অনুষ্ঠানে পরিণীতা সিনেমা’র জন্য সেরা অ’ভিনেত্রী হিসেবে মনোনীত হন।

সম্প্রতি ফের শ্যুটিং ফ্লোরে কামব্যক ও করছিলেন অ’ভিনেত্রী। জি বাংলার ড্যান্স বাংলা ড্যান্সে বিচারক হিসেবে ফের কাজে যোগদান করছিলেন অ’ভিনেত্রী।

এর মধ্যেই শুভশ্রী করো’না আ’ক্রা'’ন্ত হলেন। এদিকে আগামী ২২ এপ্রিল ব্যরাকপুরে রাজের ভাগ্যগণনার পরীক্ষা। কোভিড আ’ক্রা'’ন্ত হওয়ার পর এই প্রথম ছেলেকে ছেড়ে ঘরবন্দী ছোট্ট একরত্তি। ছেলের সঙ্গে সাক্ষাৎ পর্যন্ত হচ্ছে না মা বাবা কারোর। তাই ছেলেও অ’ভিমানে মুখ ফুলিয়ে রেখেছে একটু আর সেই ছবি আজ সকালে রাজ নিজের ইন্সটাগ্রাম হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন। ঠাকুমা’র কোলে বসে দিন কাটছে রাজ পুত্রের। কি আর করা যাব'’ে।

ইউভানকে ছেড়ে ফ্ল্যাটের অন্য রুমে নিভৃতাবাসে রয়েছেন। করো’নাতে না ছেলেকে ছেড়ে বেশি খারাপ আছেন অ’ভিনেত্রী। কি করেই বা ভালো থাকবে। জন্মের পর যে ছেলের প্রতিটি মুহূর্তে পাশে ছিলেন শুভশ্রী।

অ’ভিনেত্রীর চোখের মনি ইউভান। একরত্তিকে দেখতে না পেয়ে আর পারছেনা তাই তো মনের দুঃখে নিজের ইন্সটাগ্রাম হ্যান্ডেলে ছোট একরত্তির একটি মি'ষ্টি ছবি শেয়ার করে নিজের দুঃখের কথা লিখলেন। শুভশ্রী লিখেছেন, “তোমাকে ছেড়ে এতদিন থাকতে হবে তা কোনোদিন ভাবিনি”। এরপর অনুরাগীরা দুঃখ প্রকাশ করেন।৷ অ’ভিনেত্রীর তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে ওঠার প্রার্থনা করেন। নিমেষে ভাইরাল হয় এই পোস্ট।