অবশেষে নিখোঁজ সাবমেরিনের ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার, বেঁচে নেই ৫৩ নাবিক

অবশেষে ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনীর নিখোঁজ সাবমেরিন কেআরআই নাঙ্গালা-৪০২-এর ৫৩ আরোহীর সবাই মা'রা গেছে বলে ধারণা করছে উ'দ্ধারকারী দল। আজ শনিবার (২৪ এপ্রিল) ইন্দোনেশিয়ার সশস্ত্র বাহিনী জানিয়েছে, অনুসন্ধান দলগু'লো সামর'িক সাবমেরিন থেকে প্রা'প্ত কিছু জিনিস উ'দ্ধার করেছে।

এক বিবৃতিতে বলা হয়, শনিবার সকালের দিকেই অক্সিজেনের মজুত শেষ হয়ে গেছে। এ বি'ষয়ে উ'দ্ধার কর্মক'র্তারা বলছেন- উ'দ্ধারকৃত ধ্বং'সাবশেষ প্রমাণ করে জাহাজটি ডুবে গেছে, শনাক্তকারীরা সাবমেরিনটি প্রায় ৮৫০ মিটার পানির নিচে শনাক্ত করেছে।

উ'দ্ধারকৃত বস্তুগু'লোর মধ্যে লুব্রিক্যান্টের বোতল ও টর্পেডো সুরক্ষা রাখার একটি ডিভাইস রয়েছে। এর আগে ইন্দোনেশিয়ার নৌবাহিনী জানিয়েছিল, সাবমেরিনটি ৭২ ঘণ্টার মধ্যে উ'দ্ধার করতে হবে।

কারণ, জাহাজে তিন দিন চলার মতো অক্সিজেন রয়েছে। সে হিসেবে না'বিকদের জীবিত পেতে হলে শনিবারের (২৪ এপ্রিল) মধ্যে সাবমেরিনটি উ'দ্ধার করতে হবে।

গত বুধবার (২১ এপ্রিল) ভোরে জার্মানির তৈরি কেআরআই নাংগালা-৪০২ সাবমেরিনটি বালি উপকূল থেকে প্রায় ৬০ মাইল (৯৬ কিমি) দূরের পানিতে নিখোঁজ হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।কেআরআই নাংগালা-৪০২ ইন্দোনেশিয়ার পাঁচটি সাবমেরিনের মধ্যে একটি।

রয়টার্স জানায়, এটি ১৯৭০ এর দশকের শেষের দিকে তৈরি করা হয়েছিল। মাঝখানে মেরামতের জন্য এটিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়। দুই বছর পর ২০১২ সালে এটির মেরামত কাজ শেষ হয়।