‘বাসায় জায়নামাজ, কুরআন আছে সেটা কেন দেখেন না’ : পরীমনি

সম্প্রতি রাজধানীর একটি ক্লাবে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার মামলা দায়ের করে আলোচনায় আসেন ঢাকাই সিনেমার অভিনেত্রী পরীমনি। বৃহস্পতিবার নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে ‘সরি’ লিখে পোস্ট করেন আলোচিত এই অভিনেত্রী।

এ সময় ওই পোস্টে তিনি কাউকে উদ্দেশ্য করে লিখেন, ‘বাসার মধ্যে মদের খালি বোতলের শোপিস দেইখা চরিত্র বুইঝা ফেলেন কেমনে বলেন তো!? বাসায় তো জায়নামাজ, কুরআন আর নামাজের ঘর আছে সেটা কেন দেখতে পাইলেন না আপনে?’

নয়া দিগন্তের পাঠকদের জন্য সম্পূর্ণ স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো-

‘সমস্যা হইলো … আমি মাইয়া লোক, কিন্তু লুতুপুতু মাইয়া টাইপ আচরণ করি নাই আপনার সাথে, ঘইটা গেল সমস্যা! চিকন সুরে ভাইয়া ভাইয়া করি নাই আপনারে, বিশাল সমস্যা! কাজের ফাঁকে আলগা রসের পিরিতের আলাপ করি নাই, ব্যাস এইতো সমস্যা!

কাজে মতপ্রকাশের অধিকার দেখাইছি, তাতেই সমস্যা! আপানার চোক্ষের সামনে আরো পাঁচ-দশ জনের মতো না হারাইয়া যাইয়া দিন দিন ক্যারিযার বানাইতেছি, নাম কামাইতেছি..এইখানে হইয়া গেল সমস্যা!

আপনি পরিচালক হইয়া ৫ বছরে একটা সিনেমা বানান আর আমার এক বছরে পাঁচ সিনেমা রিলিজ হয়, আমার তো প্রচুর সমস্যা!

আপনারে প্রযোজক বাগাইতে দিলাম না, ওরে সমস্যা! শুটিং সেটে উহ আহ করা দামরা ধইরা নগদে থাপড়াই, চরম সমস্যা! কোনরকম চামচামি না নিয়া আপনার মুখের উপরে তিতা সত্য বইলা দেই, আমারই তো সমস্যা!

তারপরতো বিড়ি খাওয়া, মদ খাওয়া, প্রেম করা, বিদেশে ইচ্ছা মত ঘুরতে যাওয়া, শুয়োরের বাচ্চা-বালছাল বইলা গালিটালি দেওয়া, পিরিয়ড নিয়া কথা বলা এইগুলাতো আছেই!
পাইছেন কই এইগুলা? আমিই তো দিছি।

আপনাদের মন ভরে না কেন বলেন তো!? টুপ কইরা কথায় কথায় চরিত্র হাতাইতে আসেন! বাসার মধ্যে মদের খালি বোতলের শোপিস দেইখা চরিত্র বুইঝা ফেলেন কেমনে বলেনতো!? বাসায় যে জায়নামাজ, কোরআন, নামাজের ঘর আছে সেইটা কেন দেখতে পাইলেন না আপনে!?

আহারে একটু জিরান এইবার। ক্ষমা দেন। অন্যায়কে অন্যায় বলতে শিখেন! অপরাধিকে অপরাধি বলতে শিখেন। একটা ন্যায়ের জন্যে লড়াইয়ের সাথে থাকেন। না পারলে এইবার অন্তত নিজের ব্যক্তিগত হিংসাত্মক আক্রমণ কইরেন না প্লিজ