পরীমনি বাচ্চা মানুষ, আমার হাত ধরেই তো সিনেমায় এসেছে জায়েদ খান

শিল্পী সমিতি শুরু থেকেই পরীমণির পাশে ছিলো এবং সবসময় থাকবে বলে জানিয়েছেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। সহযোগিতা চেয়েও পাননি বলে পরীমণি যে অ’ভিযো’গ তুলেছেন তা অ’স্বীকার করে তিনি বলেন, ও (পরীমণি) বুঝতে পারেনি। বাচ্চা মানুষ, ভুল বুঝেছে।

সোমবার (১৪ জুন) জায়েদ খান বলেন, আমর’া শিল্পী সমিতির পক্ষ থেকে হারুন ((ঢাকা মহানগর ডিবির উত্তর বিভাগের যুগ্ম-কমিশনার হারুন অর রশীদ) ভাইর সং’গে বারবার যোগাযোগ করেছি। মাম’লাটি কিন্তু হয়েছে সাভারে, হারুন ভাইর অধীনে না। আমি এবং মিশা ভাই উনাকে অনুরো’ধ করেছি সহায়তা করতে। তিনি আমা’দের অনুরো’ধ রেখেছেন। দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছেন।

জায়েদ খান বলেন, এখন পরীমণি যদি আ’ইনি সহায়তা চায়, আমা’দের শিল্পী সমিতির আইন উপদে’ষ্টা আছেন।

এছাড়া যদি আর্থিক সহায়তা প্রয়োজন হয় সেটাও শিল্পী সিমিতির পক্ষ থেকে করা হবে। সহায়তা চেয়েও পাননি বলে পরীমণির অভি’যো’গের বি’ষয়ে জায়েদ খান বলেন, ও বুঝতে পারেনি। বাচ্চা মানুষ তো, একা কী করবে? সামলাতে পারেনি।

এতে ওর দো’ষ ধরছি না। ও আমার কাছে এসেছিলো। আমি বলেছিলাম, তুমি শিল্পী সমিতির কাছে কী চাও? সে বলেছিলো, তোমর’া আমাকে আইজিপির সংগে দেখা করিয়ে দাও। এটা শিল্পী সমিতির কাছে আমার চাওয়া।

তিনি বলেন, ও বৃহস্পতিবার রাতে এসেছিলো, আমি বললাম শুক্র-শনিবার গেলে রবিবার আমর’া একটা চিঠি লিখবো। তুমিও একটা চিঠি দিও। আমি টিভিতে দেখলাম আইজিপি মহোদয় রাজশাহীতে আছেন। আমি বললাম, উনি রাজশাহীতে আছেন। ঢাকায় ফিরলে যোগাযোগ করবো।

এরপর হয়তো ও ভুল বুঝেছে। ভেবেছে, জায়েদ খান তাঁকে ঘো’রাচ্ছে। যাই হোক, ও বাচ্চা মানুষ। আমার হাত ধরেই তো সিনেমায় এসেছে। ওর প্রথম নায়কই তো আমি।

ও ভুল বুঝেছে। তারপরেও আমর’া ওর সংগে আছি। সে হয়তো আবেগে, ক’ষ্টে অনেককিছু বলেছে। আমর’া কোনোভাবেই ওর পাশ থেকে সরে যাইনি। জায়েদ খান বলেন, সাংবাদিক সম্মেলনের আগেও ফোন করে জিজ্ঞাসা করেছিলাম যেতে হবে কি না। ও বলেছে, যেতে হবে না। ওর চাওয়া ছিলো একটাই- আইজিপি মহোদয়ের সং’গে দেখা করা। কিন্তু আইজিপি’র সংগে তো চাইলেই দেখা করা যায় না। একটা প্র’টোক’লের ব্যাপার আছে। সে এখনও শিল্পী সমিতিকে লিখিত কিছু দেয়নি উল্লেখ করে জায়েদ খান বলেন, আসলে লিখিত বড় কথা না। শিল্পী বিপদে পড়েছে শিল্পী সিমিতি তাঁর পাশে থাকবে। তিনি বলেন, যেহেতু মাম’লা হয়ে গেছে এবং আসা’মি গ্রে’’ফ’তার হয়েছে, এখন তো আর আ’ন্দোলন সংগ্রা’মের কিছু নেই। আন্দোলনে

আর কিছু হবে না। আইন নিজের গতি’তেই চলবে। আমর’া আই’নের প্রতি শ্র’দ্ধাশীল। রাতে পরীমণির বাসায় যাবেন জানিয়ে জায়েদ খান বলেন, ওর সংগে কথা বলবো। মান’সিকভাবে ও ভালো নেই। ও যেভাবে চাইবে শিল্পী সমিতি সেভাবেই ওর পাশে থাকবে।