নতুন লকডাউনে আসতে পারে যেসব কঠোর বিধি নিষেধ

দেশে বেড়ে চলেছে করোনার প্রকোপ। দেশে করোনা মোকাবিলায় কঠোর লকডাউনের মাঝেই নতুন করে আরও কড়াকড়ি নিয়ম বেঁধে দেয়া হবে নতুন লকডাউন। আগামী সোমবার (২৮ জুন) থেকে সাতদিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। তবে আগের লকডাউনের মতো হবে না নতুন এই লকডাউন। নতুন লকডাউনে দেশজুড়ে আসতে পারে কঠোর বিধি-নিষেধ।

জানা গেছে, জরুরি পরিষেবা ছাড়া সরকারি ও বেসরকারি সব অফিস বন্ধ রাখা হবে নতুন লকডাউনে। এছাড়া জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হওয়ায় থাকবে নিষেধাজ্ঞা। এছাড়া জরুরি পণ্য পরিবহন ছাড়া সব যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হবে। তবে চালু রাখা হবে অ্যাম্বুলেন্স ও চিকিৎসা সংক্রান্ত কাজের জন্য যানবাহন। লকডাউনের আওতামুক্ত থাকবে দেশের সকল গণমাধ্যম।

তথ্য অধিদফতরের প্রধান তথ্য কর্মকর্তা সুরথ কুমার সরকার স্বাক্ষরিত এক তথ্য বিবরণীতে জানা যায়, ‘কঠোর লকডাউন’ বলতে যে চিন্তাটি করা হয়েছে সেটা হলো, শুধু জরুরি সেবা ছাড়া আর কোনো কিছুই চলবে না। এখন যেমন কিছু কিছু বিষয়ে নমনীয়তা দেখানো হচ্ছে, সেটি হয়তো তখন আর থাকবে না।

বর্তমানে যে লকডাউন চলছে, সেখানে সব ধরনের গণপরিবহন চলছে। বাজার, শপিংমল খোলা রয়েছে। অফিস-আদালত, ব্যাংক, বিমা- সব কিছুই খোলা। বেসরকারি খাতেরও সব কিছুই খোলা।

তবে ওষুধের দোকান, নিত্যপণ্যের দোকান জরুরি সেবার মধ্যেই পড়ে। তাই এগুলো লকডাউনেও খোলা রাখা যাবে। এছাড়া গতবারের মতো মুভমেন্ট পাস নিয়ে বাইরে বের হওয়া যাবে কি না সে বিষয়ে এখনো কিছুই জানা যায়নি।

এদিকে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী মো. ফরহাদ হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, আপাতত এক সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। পরে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে এটা বাড়ানো হতে পারে। তিনি আরো জানান, কঠোর লকডাউন চলাকালে পুলিশের পাশাপাশি সেনাবাহিনী-বিজিবি মাঠ পর্যায়ে দায়িত্ব পালন করবে।